উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করল হাইকোর্ট ফের অনিশ্চিত চাকরিপ্রার্থীদের ভবিষ্যৎ

0

২০১৬ সালের উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ বাতিল করল কলকাতা হাইকোর্ট। চাকরিপ্রার্থীদের এক আবেদনের ভিত্তিতে শুক্রবার এই রায় দেন মাননীয়া বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্য। প্যানেল , মেধা তালিকা সমস্ত কিছু বাতিলের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ফলে প্রথম থেকে ফের শুরু করতে হবে নিয়োগ প্রক্রিয়া।

২০১৬ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর উচ্চ-প্রাথমিকে নিয়োগের জন্য জারি হয়েছিল সরকারি বিজ্ঞপ্তি। চাকরি প্রার্থীদের দাবি, ওই পরীক্ষার যে মেধা তালিকা ও প্যানেল তৈরিতে দুর্নীতি হয়েছে। ন্যূনতম যোগ্যতামান উত্তীর্ণ নন এমন প্রার্থীদের নাম ও রয়েছে প্যানেলে। অথচ নাম বাদ পড়েছে বহু যোগ্য প্রার্থীর। এই অভিযোগ নিয়ে গত বছর আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন উচ্চ প্রাথমিক এর চাকরিপ্রার্থীরা।

উচ্চ প্রাথমিক নিয়োগ প্রক্রিয়া

মামলার রায়ে শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের মাননীয়া বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্য বলেন, উচ্চপ্রাথমিকে নিয়োগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। হাতে গোনা শিক্ষক থাকেন এই স্তরে। ফলে নিয়োগে যে কোনও গাফিলতির মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে শিক্ষাব্যবস্থায়। তাই গোটা নিয়োগ প্রক্রিয়া-কে বাতিল ঘোষণা করছে আদালত।

আরো পড়ুন : পরীক্ষা ছাড়াই পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হবে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা জানান পর্ষদ

হাইকোর্টের নির্দেশ, নথি যাচাই থেকে নতুন করে স্কুল সার্ভিস কমিশন-কে শুরু করতে হবে নিয়োগপ্রক্রিয়া। তার পর তৈরি করতে হবে নতুন মেধাতালিকা ও নতুন প্যানেল। সেই প্যানেলের ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে হবে যোগ্য প্রার্থীদের। আদালতের এই নির্দেশে উচ্চপ্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া অথই জলে পড়ল বলে মনে করা হচ্ছে। বিচারপতি মাননীয়া মৌসুমী ভট্টাচার্য নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়া আগামী বছর 4 ই জানুয়ারি শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন এবং তা এপ্রিল মাসের মধ্যেই শেষ করার কথা বলেছেন স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফ থেকে এ ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি
সবমিলিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া অথৈ জলে বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল

টাইম রেডিক্যাল বাংলা এখন টেলিগ্রামে  পড়তে থাকুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here